Friday, 26 January 2018

আমরা কাকে কতটা সময় দিবো সেটা নির্ভর করে সে মানুষটা আমাদের কাছে কতটা মুল্যবান তার উপর।

আমরা কাকে কতটা সময় দিবো সেটা নির্ভর করে সে মানুষটা আমাদের কাছে কতটা মুল্যবান তার উপর।একজন আমাকে বললো আপনি এত ব্যস্ততার মধ্যেও এত সময় পান কি করে?আরেকজন বললো আপনি কি নিয়ে এত ব্যস্ত থাকেন?এরা কেউ ভুল বলেনি।দুজনই দুজনের যায়গা থেকে সঠিক ছিলো।কারনটা হলো একজনকে আমি হাজার ব্যস্ততার মধ্যেও সময় দিচ্ছি আর আরেকজনকে আমি ব্যস্ততা দেখিয়ে সময় দিচ্ছি না।হ্যা সত্যি আমি খুব ব্যস্ত থাকি,কাউকে এমনি এমনি সময় দেওয়ার মত সময় নেই আমার।তারপরও যে মানুষটার মুল্য আমার কাছে বেশি তাকে আমি সময় দিচ্ছি,তাকে আমি কখনো বুঝতে দিচ্ছি না যে আমি খুব ব্যস্ত।তাই সে মনে করছে আমার হাতে অঢেল সময়।
হ্যা আমাদের কাছে যে মানুষগুলোর মুল্য বেশি মনে হয় তাদের জন্য সময় এমনি বের করতে পারি।আর এখন তো সবার হাতের মুঠোয় সব তাই কাজের ফাঁকে ফাঁকে আমরা অনেকের সাথে কথা বলি,চ্যাট করি সমস্যা হয় না।সমস্যা হয় তখন যখন মানুষটার গুরুত্ব আমাদের কাছে কম থাকে।তারা যদি কথা বলতে আসে বা চ্যাট করতে আসে তাহলে আমাদের কাজের মধ্যে এসব মানুষগুলোকে খুব ঝামেলা মনে হয়,আমরা বিরক্ত হই।ফলে মানুষটাকে বুঝিয়ে দিতে হয় আমি সত্যি খুব ব্যস্ত।
প্রতিটা মানুষই যে যত গুরুত্বপূর্ন কাজেই ব্যস্ত থাকুক না কেন,তার জগতে এমন কিছু মানুষ থাকে যাদেরকে সময় দিতে তার কোন ব্যস্ততাই বাধা হতে পারে না।
উদাহরনস্বরুপ, ধরুন আপনি খুব ব্যস্ত মানুষ,ঠিকমত নাওয়া খাওয়ারও সময় পাননা।হঠাৎ আপনার কাউকে ভালো লেগে গেল বা প্রেম হলো,তখন দেখবেন এত ব্যস্ততার মাঝেও তারজন্য ঠিক সময় বের করতে পারবেন।একটু পরপর তার খবর নিতে,তার সাথে দেখা করতে,ঘুরতে যেতে,কথা বলতে ঠিক সময় বের হয়ে যাবে।কিন্তু সেই মানুষটার সাথেই কিছুদিন পর আর আপনি সময় দিতে পারবেন না,আস্তে আস্তে আপনার ব্যস্ততাটা বেড়ে যাবে।কাজ কিন্তু আপনি আগের মতই করছেন তবু এখন আর সময় পাচ্ছেন না।
যখন কোন মানুষ নতুন বিয়ে করে তখন ঘন্টায় ঘন্টায় বউয়ের খবর নিবে অফিসে কাজের ফাঁকে ফাঁকে,তাড়াতাড়ি বাড়ি এসে বউকে সময় দিতে চাইবে।ঠিক কিছুদিন পর আস্তে আস্তে এতটাই ব্যস্ত হবে যে বউ প্রয়োজনে ফোন দিলেও ১মিনিট কথা বলার সময় হবে না।ব্যস্ততা দেখিয়ে সাথে সাথে রেখে দিবেন।ঠিক তখনই অন্য কোন পছন্দের মানুষ ফোন দিয়ে যদি বলে তুমি কি ব্যস্ত কথা বলা যাবে?আপনি তখনই বলে উঠবেন না না কোন ব্যস্ত নই,কথা বলতে আমার কিসের ব্যস্ত,আর তোমার জন্য আমি সবসময়ই ফ্রি বলে খোজ গল্পে মত্ত হতে পারবেন।
এটাই হলো ফ্যাক্ট,আপনার কাছে যার মুল্য যতটা বেশি আপনি তার কাছে ততটাই সস্তা হবেন,আর যার মুল্য যত কম তার কাছে ততটাই দামী হবেন।আপনাকে যে বেশি মুল্য দিবে তাকেই আপনি সস্তা ভাববেন অথচ আপনাকে যে কোন মুল্যই দিতে চাইবে না তার মুল্যই আপনার কাছে বেশি হবে।
----$wopna's kheyal---

No comments:

Post a Comment